লাইফ স্টাইল

প্রতিদিন মাত্র ১০ মিনিটের যত্নেই মোহময়ী !!!

সৃস্টির শুরু থেকেই নারী নিজেেক মোহময়ী করে তুলতে আগ্রহী।প্রত্যেকে ভাবেন আরেকটু যদি সুন্দরী হতাম। এই গায়ের রং ফর্সা করার জন্য আমরা কত কিছুই না করে থাকি। বিউটি পার্লারের স্কিন পলিশ বা ফেয়ার পলিশ নামক ব্যয় বহুল কৃত্তিম বিউটি ট্রিটমেনট, তার সঙ্গে কত কসমেটিক্সের ব্যবহার !

কিন্তু এগুলো যে কত ক্ষতিকর তা কি আমরা জানি? অনেক সময় জেনে বা না জেনেই এই সব ব্যবহার করছেন। তাহলে কি কোনভাবেই গায়ের রঙ সুন্দর করা যাবে না ? অবশ্যই যাবে। আর সেই উপায়টি হল ঘরোয়া পদ্ধতিতে। আসুন দেখে নিই দ্রুত ত্বক মোহময়ী ও নজরকাড়া করার উপায়টি।

যা যা লাগবে
১/২ টেবিল চামচ টকদই
১ টেবিলচামচ শসার পেষ্ট
১ টেবিলচামচ গুঁড়া দুধ

যা যা করবেন –
-প্রথমে মুখটি ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
-তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিন।
-এরপর টক দই, শসার পেষ্ট, গুঁড়া দুধ মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ফেলুন।
-প্যাকটি ভাল করে মুখে লাগান। শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।
-শুকিয়ে গেলে কসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এখন আয়নায় নিজের মুখটা দেখুন। দেখবেন বেশ উজ্জ্বল দেখাচ্ছে। নিয়মিত ব্যবহারে প্রাকৃতিকভাবে আপনার ত্বক আগের চেয়ে অনেক বেশি উজ্জ্বল হয়ে যাবে।
কীভাবে কাজ করে
টক দই রোদে পোড়া দাগ দূর করে থাকে। এতে ভিটামিন সি, জিঙ্ক, ক্যালসিয়াম আছে যা ত্বকের রং ভিতর থেকে ফর্সা করে। এটি ত্বকে ময়েশ্চারাইজ ও এক্সফোলিয়েট করে থাকে। এছাড়া বলিরেখা দূর করতে টক দই এর জুড়ি নেই।
শসার পেষ্ট ত্বককে ঠান্ডা অনুভূতি দিয়ে থাকে। ত্বকের কালো দাগ, চোখের নিচের দাগও দূর করে থাকে শসা। শসা ত্বকের খুব ভাল টোনার হিসেবে কাজ করে ।

গুঁড়ো দুধে পানি আছে যা ত্বকের পানির পরিমাণ ঠিক রাখে। গুঁড়া দুধ ত্বকের দাগ দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল ও মসৃণ করে থাকে।

 

0.00 avg. rating (0% score) - 0 votes
Tags
Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close